তাজা খবর
শ্যালিকাকে ধর্ষণ ও হত্যার দায়ে দুলাভাইয়ের যাবজ্জীবন

শ্যালিকাকে ধর্ষণ ও হত্যার দায়ে দুলাভাইয়ের যাবজ্জীবন

 

চুয়াডাঙ্গায় শ্যালিকাকে ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় বৃহস্পতিবার দুপুরে দুলাভাই ইমান আলীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

চুয়াডাঙ্গা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক জিয়া হায়দার এ রায় দেন। মামলার অপর আসামি আবদুল মজিদ মানসিক প্রতিবন্ধী হওয়ায় তাকে এ মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি অ্যাডভোকেট আবদুল মালেক জানান, ২০১৪ সালের ৯ সেপ্টম্বর রাতে চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনা জয়নগরের লিয়াকত আলীর মেয়ে স্কুলছাত্রী ফারাজান আক্তার কুটি নিখোঁজ হয়। এ ঘটনার দুদিন পর পুলিশ সন্দেহভাজন হিসেবে কুটির দুলাভাই ইমান আলী ও জয়নগরের বিল্লাল হোসেনের ছেলে আবদুল মজিদকে আটক করে। পুলিশি জিজ্ঞাসায় তারা কুটিকে ধর্ষণ ও হত্যা করার কথা স্বীকার করে।

পরে তাদের স্বীকারোক্তিতে নিহত কুটির মরদেহ উদ্ধার করে। এ মামলায় ১৪ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ ও নথিপত্র পর্যালোচনা শেষে বিচারক ইমান আলীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*