তাজা খবর
৯০ বছর পরে খোঁজ মিলল অন্য এক টাইটানিকের!

৯০ বছর পরে খোঁজ মিলল অন্য এক টাইটানিকের!

১৯২৮ সালে তলিয়ে গিয়েছিল সেই জাহাজ। গত নয় দশকে তাকে নিয়ে রচিত হয়েছে কাহিনির পরে কাহিনি। তল্লাশ চলেছে জোর কদমে। কিন্তু তার কোন হদিশ পাওয়া যায়নি।

জানা গেছে, ‘টাইটানিক’র মতো ‘মানাসু’ নামেত এই জাহাজটিও ছিল ব্রিটিশ। কানাডার লেক হিউরনে এক ঝড়ের মুখে পড়ে তলিয়ে যায় ‘মানাসু’। প্রাণ হারান ১৬ জন যাত্রী। শোনা যায়, এই জাহাজে বেশ কিছু দামি সামগ্রীও ছিল।

ইতিহাস বিশেষজ্ঞ ক্রিস কোহ‌্‌ল জানিয়েছেন, ১৯২৮ সালের আগে ‘মানাসু’ চলাচল করত লেক অন্টারিওতে। সেই বছর তার মালিকানা বদল ঘটে। নতুন মালিক সেটিকে লেক হিউরনে নিয়ে যান। সেই সঙ্গে বদলে দেওয়া হয় জাহাজটির নামও। আগে তার নাম ছিল ‘মাকাসা’, পরে নামকরণ হয় ‘মানাসু’।

গত ৯০ বছর ধরে খোঁজ চলেছে ‘মানাসু’র। কিন্তু ১৮৮৮ সালে গ্লাসগোয় তৈরি এই জাহাজের সন্ধান মেলেনি। সম্প্রতি এই জাহাজকে অন্টারিওর গ্রিফিথ আইল্যান্ডের কাছে ২০০ ফুট জলের গভীরে আবিষ্কার করলেন কোহ‌্ল এবং তার সহযোগী কেন মেরিম্যান এবং জেরি এলিয়াসন।

জানা গেছে, ডুবে থাকা ‘মানাসু’-তে কোন মানুষ বা প্রাণীর দেহাবশেষ পাওয়া যায়নি। কিন্তু জাহাজের ডেকে রাখা ১৯২৭ সালের এক শেভ্রলে গাড়িকে পাওয়া গেছে যথাস্থানেই। জাহাজ ভর্তি ছিল গবাদি পশুতে। এই পশুগুলির মালিক ডোনাল্ড ওয়ালেসই ছিলেন এই গাড়ির মালিক। তিনি অবশ্য বেঁচে যান এই দুর্ঘটনায়।

ডুবে থাকা জাহাজের ডেকে গাড়ি খুবই বিরল এই ঘটনা, এমনটাই জানাচ্ছেন কোহ‌্ল ও তার সহকারীরা। তবে জাহাজের ভগ্নাবশেষে কোন মানুষ অথবা প্রাণীর দেহাবশেষ না পাওয়াটা রীতিমতো রহস্যজনক, এমনটাই জানাচ্ছেন তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*